রোজা পালনে বাধা দিচ্ছে চীন সরকার

সারাবিশ্বের মুসলিমরা পবিত্র রমজান মাসে রোজা পালণ করছেন। আর এরই মধ্যে চীনের মুসলিম জনগোষ্ঠীর ওপর রোজা ও ধর্মীয় আচার পালনে বিধিনিষেধ আরোপ করেছে সে দেশের সরকার। রোজা ও ধর্মীয় আচার পালনের কারণে তাদের ওপর দমনপীড়ন চালাচ্ছে চীনা কর্তৃপক্ষ। হিউম্যান রাইটস ওয়াচ এবং অধিকারকর্মীদের বরাতে এ তথ্য জানা গেছে।

হিউম্যান রাইটস ওয়াচ এবং অধিকারকর্মীরা জানিয়েছেন, চীনের পশ্চিমাঞ্চলীয় মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ জিনজিয়াং প্রদেশে ধর্মীয় আচার পালনে বাধা দেওয়া হচ্ছে। এখানে মুসলিম পরিবারগুলোর ঘরবাড়িতে নিয়মিত অবস্থান করে ধর্মীয় আচার পালনে বাধা দিচ্ছে চীনা কর্তৃপক্ষ।

গত সপ্তাহে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল প্রতিবেদনে জানায়, রমজানে রোযা রাখা, দাড়ি রাখা, মুসলিমদের মাথায় টুপি পড়া, নিয়মিত নামাজ পড়া এবং এলকোহল পরিহারসহ অন্যান্য ধর্মীয় বিষয়গুলোকে ‘চরমপন্থার চিহ্ন’ বলে মনে করে চীনা কর্তৃপক্ষ।

চীনা কর্তৃপক্ষ সংগঠিত ধর্মকে দলীয় আনুগত্যের জন্য হুমকি বলে মনে করে। এ কারণে সকল ধর্মীয় গোষ্ঠীর উপর কঠোর শাসন আরোপ করেছে তারা। জিনজিয়াং অঞ্চলের সংখ্যালঘু মুসলিমদের ওপর সবচেয়ে বেশি নিপীড়ন চলছে।

চীনে কয়েক দশক ধরে স্কুল ও সরকারী অফিসগুলোতে রমজানের রোযা রাখার বিষয়ে বিধিনিষেধ আরোপ করা রয়েছে। এদিকে, চীনে মুসলিমদের রোজা ও ধর্মীয় আচার পালনে বিধিনিষেধ ও দমনপীড়নের প্রতিবাদে দেশটির পণ্য বর্জনের আহবান জানিয়েছে কয়েকটি মানবাধিকার সংগঠন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*